Category Archives: hack

ভবিষ্যতের ইতিহাস

ইতিহাস, হঠাৎ হয়না; তবে হয়েই যায়। ইতিহাস অনুমান করা যায়না, তবে আঁচ করা যায়। আমার মত যারা মজিলা মিশনে বিশ্বাস করেন; তারা অবশ্যই আশা করি যে, “ফায়ারফক্স ওএস একদিন অনেকটা বাজার দখল করবে।” আর বাজার দখলের শতাংশে ভবিষ্যতে, আমার আলোচ্য বিষয়টি অনেক বড় এবং গুরুত্বপূর্ণ বলেই বিবেচিত হবে বলে আমি বিশ্বাস করি। আমি এক্সাইটেড না, আমি বুঝে শুনেই বলছি, বর্তমানে বাংলাদেশ হতে যতজন মজিলিয়ান, মজিলা মিশনে অবদান রাখছেন, তন্মধ্যে অন্যতম, অনিরুদ্ধ অধিকারী। তিনি আমাদের মধ্যে অন্যতম। তিনি আমাদের প্রাণের ভাষাকে ফায়ারফক্স ওএস এ স্থায়ী করতে প্রথম উদ্যোগ নেন  এবং এ পর্যন্ত সবচে বেশী কর্ম ঘন্টা ব্যয় করে আরও অনেক গুলো ভাষা সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ কাজ করে চলেছেন।

ফায়ারফক্স ওএস, মজিলা ফাউন্ডেশন কর্তৃক ডেভেলপড করা একটি মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম। বিস্তারিত পড়ুন আমার আরেকটি অনুবাদ-ব্লগে। মজিলার বেতনভুক্ত ডেভলপাররা রাতদিন পরিশ্রম করে চলেছেন, একটি মানসম্পন্ন মোবাইল ওসএ উন্নয়ন করতে। বেশকিছু ভাষা তার স্থাপন করেছেন ওএস টিতে, আরও ভাষা অন্তর্ভুক্ত করবেন নিকট ভবিষ্যতে। কিন্তু আমাদের অনিরুদ্ধ অপেক্ষা করেননি, ২০১৩ এর একুশে ফেব্রুয়ারীর দিন সাবমিট করে দিয়েছিলেন একটি বাগ(bug), অনেকটা বিদ্রোহীর মত। অনেক আলোচনা-সমালোচনার পর, অনেকদিন পর মজিলা বাগটি আমলে নিয়ে, অনিরুদ্ধ এর কথা মত ফায়ারফক্স ওএসের কোডে, বাংলা ভাষাকে স্থান করে দেয়।

ani'sbug

অনিরুদ্ধের সেই বাগ। ছবিতে ক্লিক করে bugizlla তে যাওয়া যাবে।

for techie – অনিরুদ্ধ ২১ শে ফেব্রুয়ারী, B2Gতে বাংলা ফন্ট রেন্ডার না হওয়ার সমস্যা জানিয়ে bugzilla তে, বাগ সাবমিট করেন সন্ধ্যা ৭টা ১১ মিনিটে। সেটির সমাধানকল্পে, ৭টা ৪৫মিনিটে বাংলা ফন্টের জন্যে পুল রিকোয়েস্ট করেন। পরের দিন, patch তৈরী করে সংযুক্ত করে দেন বাগে। ১৫ই অক্টোবর পুল রিকোয়েস্ট মার্জ করে মজিলা আর বাগটি resolve করে fix করে দেয়।

আর আমরা পাই, ফায়ারফক্স ওএস এ বাংলা দেখার সৌভাগ্য।

DSC_1036

গিকস্ ফোনের তৈরী পিক মডেলের ফোনে, ফায়ারফক্স ওএস এ বাংলা।

মজার বিষয় হল, অনি বাংলা হরফ ব্যবহার করে, এমন সকল ভাষারই উপকার করেছে।

(লেখাটি আংশিক, এ সপ্তাহে হরতালে আরও কিছু লিখবো এটিতে। শেষ করে অনিকে উৎসর্গ করবো। Tribute এর মত।)

Advertisements

লিঙ্কসিস (Linksys) BEFW11S4 রাউটার দিয়ে ওয়াইফাই একসেস পয়েন্ট

এক শুভাকাঙ্খী একটি রাউটার উপহার দিয়েছিলেন। তিনি বিভিন্ন বিদেশী দূতাবাসে বৈদ্যুতিক মিস্ত্রী হিসেবে কাজ করতেন। বিদেশী নাগরিকদের ব্যক্তিগত আমোদের জিনিসপত্র মেরামত করতেন বিনামূল্যে, ওদের বাসায় গিয়ে। এজন্যে ওরাও আমার এই শুভাকাঙ্খি বড় ভাইটিকে আদর ও স্নেহ করতেন। সেই সুবাদে চাকরী শেষে দেশে ফেরতগামী ভিনদেশীদের পুরাতন ব্যবহার্য্য জিনিসপত্র ক্রয় করে সেগুলো পুনরায় মেরামত করে বিক্রয় করতেন। তিনি আমাকে বছর চারেক পূর্বে একটি ভোল্টেজ স্টাবিলাইজার এবং ১১০ ভোল্টে চালনার উপযোগী এডাপ্টার সহ, একটি লিঙ্কসিস রাউটার উপহার দিয়েছিলেন। তখন আমার বাসায় ওয়্যারলেস পূর্বে হতেই ছিলো, তাই সেটি আর ব্যবহার করিনি। অথবা হয়তো ২২০ হতে ১১০ ভোল্ট কনভার্টান কেনার আলসেমীর কারণে চেষ্টাই করিনি। এই জুনে (২০১৩) আমি ৩৮ বছর বয়সে, বাবা-মা’র হোটেল হতে বেরিয়ে নিজের ফ্লাটে উঠেছি। বাসাটি বেশ বড়ো। ফাইবার অপটিক দিয়ে ডেডিকেটেড ১ এমবি ইন্টারনেট সংযোগ নিয়ে আমার পূর্বে বেলকিন ওয়্যারলেস রাউটারে লাগিয়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করছি। যে কোম্পানী হতে সংযোগ নিয়েছে, সেটির প্রতিষ্ঠা ২০০৪ এ আমার হাতেই হয়েছিলো। সেখানে হয়তো বেশকিছু স্ক্রিপ্ট (রেডহ্যাট) এখনও আমার গুলোই চলে। তো সেই প্রতিষ্ঠানের আমার প্রতি বিশেষ স্নেহ রয়েছে, তাই সংযোগের গতি প্রায়ই ১০এমবি বার্স্টেবল পাই। যাইহোক, এত স্পীড ও এত বড় বাসায় একটি ওয়ারলেস রাউটার দিয়ে আমার বেতার যন্ত্রগুলোর সু-ব্যবহার হচ্ছিলো না।

primary_tplink_OpenWRTএকটি TP Link রাউটারকে ফ্লাশ করে OpenWRT দিয়ে ফাইন টিউনিং করেও বেশী নেটওয়ার্ক কাভারেজ পাইনা, দশতলা বিল্ডিং এর মোটা মোটা কলাম আর দেওয়ালের জন্যে। চিন্তা করলাম আরেকটা একসেস পয়েন্ট লাগবে। সেই লিঙ্কসিস রাউটারটিকে একটি ইন্টারনেট একসেস পয়েন্ট বানাতে বসেছিলাম আজকে।

লিঙ্কসিসের BEFW11S4 মডেলটি একসেস পয়েন্ট হিসেবে ব্যবহারের জন্যে একক্লিক জাতীয় কোন ডিফল্ট সেটিংস নেই। আমার মনে হয়, এটি নিতান্তই ঘরোয়া প্রয়োজনে একটি প্রাথমিক ওয়াইফাই রাউটার হিসেবে ব্যবহারের জন্যে ডিজাইন করা হয়েছে। এর লাস্ট ফার্মওয়্যার আপডেট হয়েছিলো ২০০৫ সালে, অর্থ্যাৎ প্রায় ৮বছর পূর্বে মাল এটি। আমার যা প্রয়োজন তা হলো একটি একসেস পয়েন্ট যা আমার সকল ওয়াইফাই ডিভাইসসমূহ ইথারনেট এর সাথে ব্রিজ করা। আমার প্রধান বেতার রাউটারটি ফ্লাটের এক কোনায় রাখতে হয়েছে, ফাইবার অফটিক মিডিয়া কনভার্টের সাথে যুক্ত করার প্রয়োজনে। তাই সেটি সবগুলো ঘর হতে ভাল মাত্রায় নেটওয়া্র্ক পাওয়া যায় না।

linksysসফটড্রিংকস এর ক্যান কেটে দুইটা প্যারাবলা টাইপ বুস্টার লাগিয়েছি। dBm ৬০থেকে কমে ৪৫ হয়েছে।

DlSpeed1mbবেতারে, নিম্নভরণ এর গতি ভালই পাচ্ছি।

আমি জানতাম প্রয়োজনীয় কনফিগারেশন করতে পারলেই যেকোন কমদামা বেতার রাউটারকে AP (একসেস পয়েন্ট) বানানো যাবে – সঠিক উপায়ে এটি করতে পারলেই হলো। আমি BEFW11S4 এর আচরণ AP তে পরিবর্তন করতে যা করেছি:

এক পলকে যা করেছি।

সর্বপ্রথমে যা মনে রাখতে হবে, তা হলো এই লিঙ্কসিস রাউটার দিয়ে কোন রাউটিং করানো হবে না,  এটি শুধু ব্রিজিং করবে। অতএব, পেছনের ইন্টারনেট (বা wan) পোর্ট এ আমার কোন কাজ নাই, এর বদলে আমি রাউটারটিকে পেছনের চারটি ল্যান (LAN) পোর্টের একটিতে লাগিয়ে দিবো।

  • লিঙ্কসিস এর ওয়েব ম্যানেজমেন্ট এর admin পেজ এ গেলাম।
  • সেখান থেকে Advance routing এ গিয়ে NAT নিস্ক্রিয় করে দিলাম।
  • ওয়ারলেস সিকিউরিটি ট্যাব এ গিয়ে WEP/WPA ব্যাবহার করে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে
  • Basic Setup এ গিয়ে Local DHCP server নিস্ক্রিয় করে দিতে হবে। এক নেটওয়ার্কে দুইটা সার্ভার এর দরকার নাই। মূল রাউটার (OpenWRT তে চলছে) সকলকে আইপি এড্রেস এসাইন করবে।
  • Internet type এ IP address manually সেট করে দিলাম। কারণ, আমরা ইন্টারনেট পোর্ট ব্যবহার করবো না। এই রাউটারের ইন্টারনেট এর বিষয়ে আমরা চিন্তিত নই।
  • local address এ মূল (OpenWRT) রাউটারের নেটওয়ার্ক (10.0.0.1) রেঞ্জের দূরবর্ত কোন আইপি ঠিকানা লিখবো। আমি x.x.1.100 করেছি।
  • Linksys রাউটারের LAN (WAN বা ইন্টারনেট পোর্ট নয়) পোর্টে, একটি ক্রসওভার (যদিও নতুন সব রাউটারে প্রয়োজন নেই, আজকাল বেশীরভাগ নেটওয়ার্ক যন্ত্রপাতি “ক্রসওভার এবং স্ট্রেইট” বুঝে নিতে সক্ষম) ইউটিপি ক্যাবল দিয়ে প্রধান রাউটারের যেকোন ল্যান পোর্টে লাগাতে হবে।‌‌

ব্যস, পেয়ে গেলাম আমার একসেস পয়েন্ট। আমার পুরা ফ্ল্যাট ওয়াইফাই হটস্পট হয়ে গেছে। বাইরে কতদূর পাওয়া যায় কাল ট্রাই করে দেখবো এন্ড্রয়েড এর WiFi Analyzer এপ দিয়ে।